বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় দিন দিন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। বর্তমানে দেশের অতি দরিদ্র মানুষ থেকে শুরু করে বিত্তবান ও রাজনৈতিক ব্যক্তিরা এই করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হচ্ছে। অনেক রাজনৈতিক ব্যক্তির পরিবারেরও করোনা ভাইরাস হানা দিচ্ছে। এমনকি কয়েকজন রাজনৈতিক ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে। আর এবার এক এমপি সহ তার পরিবারের ১১ জন করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display


সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন চট্টগ্রাম-১৬ বাঁশখালী আসনের সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী। এমপি ছাড়া আক্রান্ত অন্যদের মধ্যে তার পরিবারের ছয় সদস্যসহ বাড়ির মোট ১০ জন রয়েছেন। বন্দরনগরীর নাসিরাবাদের বাড়িতে তারা চিকিৎসা নিচ্ছেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংসদের ব্যক্তিগত সহকারী মোস্তাফিজুর রহমান রাসেল বলেন, ’সাংসদ মোস্তাফিজুর, তার স্ত্রী, তিন মেয়ে, এক নাতনি ও এক জামাতা, তিন গৃহ পরিচারিকা ও তার নিজের কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল ’পজিটিভ’ এসেছে।’

তিনি আরও বলেন, ’আমরা সবাই এখনও সুস্থ আছি। কারো তেমন কোনো সমস্যা দেখা যায়নি। বাড়িতে থেকেই চিকিৎসকের পরামর্শ মতে চিকিৎসা নিচ্ছি, স্যারও ভালো আছেন।’ উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের সাংসদদের মধ্যে মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। ১ জুন সাংসদসহ তার পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

এদিকে, দেশের বিভিন্ন জেলায় করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। আর বর্তমানে চট্টগ্রাম জেলায় দিন দিন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। এই জেলায় ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে অনেক মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। আর এ কারণে এই জেলাকে লকডাউন করার কথা বলে আসছে অনেকে। এমনি এই জেলার কয়েকটি স্থানকে রেড জোন হিসেবে ঘোষণা করার কথা বলছে অনেকে। এ জন্য সবাইকে অধিক সচেতন ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কথা বলা হচ্ছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display