দেশে বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারণে মানুষ যখন এক প্রকার ভীতির মধ্যে রয়েছে ঠিক এ সময়ও দেশের বিভিন্ন জেলায় নানা রকম অবৈধ কর্মকান্ডের ঘটনা প্রকাশ পাচ্ছে। প্রায় সম দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে সংবাদ প্রকাশ পায় কিছু দু:চরিত্রের মানুষের দ্বারা অসহায় নারীরা নানা রকম সমস্যায় পড়ে। এছাড়া অনেক দু:চরিত্রের মানুষ অসহায় নারীদের সাথে অবৈধ কর্মকান্ডে লিপ্ত হয় এমন অভিযোগ উঠে আসে। আর এবার তেমনই একটি অভিযোগ উঠে এসেছে একজন ব্যাংক ম্যানেজারের বিরুদ্ধে। আর এই ঘটনা নিয়ে ওই এলাকায় ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা দেখা দিয়েছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display



যশোরের কেশবপুরে অফিসের এক নারী অফিসারকে ধ’র্ষ’ণের অভিযোগে ব্যাংক ম্যানেজার গ্রেফতার হয়েছেন। সোমবার (৮ জুন) সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

কেশবপুর থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শহরের প্যারাডাইস মোড়ের তৃতীয় তলা ভবনের দ্বিতীয় তলার দক্ষিণ পাশের ফ্লাটে এসএমই ব্যাংক এশিয়া কর্পোরেশন কেশবপুর শাখার ম্যানেজার মো. আব্দুস সামাদ (৩৬) জো’রপূর্বক তার বাসায় একই অফিসের ফিল্ড অফিসারকে ধ’র্ষ’ণ করে। ঘটনার পর পরই ওই নারী থানায় উপস্থিত হয়ে ম্যানেজারের বিরুদ্ধে ধ’র্ষ’ণ মামলা করেন। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে এসএমই ব্যাংক এশিয়া কর্পোরেশন কেশবপুর শাখার ম্যানেজার মো. আব্দুস সামাদকে গ্রেফতার করে। সে রাজশাহী জেলার দূর্গাপুর উপজেলার সিংগা পূর্বপাড়া গ্রামের মো. বাদল উদ্দিন মন্ডলের ছেলে। ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় ব্যাংক ও ম্যানেজারের বাসা। ওই নারী ব্যাংকে এসে খোলা না পেয়ে চাবি আনতে গেলে ম্যানেজার জোরপূর্বক তাকে ধ’র্ষ’ণ করে। তার আত্মচিৎকারে ব্যাংকের অন্যান্য কর্মচারীরা এসে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। ওই নারী ফিল্ড অফিসারের বাড়ি কেশবপুর উপজেলার জাহানপুর এলাকায়।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জসীম উদ্দিন বলেন, ’এ ঘটনায় থানায় ধ’র্ষ’ণ মামলা হয়েছে। ধ’র্ষ’ণকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধ’র্ষ’ণের শিকার ওই নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’


এছাড়া এই ব্যাংক ম্যানেজারকে নিয়ে আরও অনেকে অভিযোগ উঠে এসেছে। অনেকে বলেন এই ব্যাংক ম্যানেজার এর অগেও অনেক নারী কর্মীর সাথে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। আর যার কারণে তাকে নিয়ে বর্তমানে যশোরে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা দেখা দিয়েছে। এদিকে দেশে যখন করোনা ভাইরাস নিয়ে মানুষ এক রকম ভীতির মধ্যে রয়েছে ঠিক সে সময় এ রকম ঘটনা প্রায় সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পাচ্ছে। আর এই বিষয়ে অনেকে বলছে দেশের কিছু মানুষের নৈতিকতার অবক্ষয় হওয়ার কারণে এমন ঘটনা ঘটছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display