দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিনিয়ত অভিযোগ উঠে আসছে যে কিছু মানুষ রুপি পশু নানা রকম ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়ে চলেছে। তবে প্রায় সময় দেখা যাচ্ছে এই সকল মানুষ রুপি পশুরা কোনো না কোনো রাজনৈতিক দলের সাথে যুক্ত থাকছেন। যার কারণে এই সকল ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অনেক সময় সাধারণ মানুষ মুখ খুলতে সাহস পায় না। আর এবার আরও একটি অভিযোগ উঠে এসেছে যে ৫ সন্তানের জননীর সম্ভ্রম কেড়ে নিল শ্রমিকলীগ নেতা।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display



সিলেটে এবার পাঁচ সন্তানের জননীকে ধ’/র্ষ’/ণে’/র অভিযোগ উঠেছে শ্রমিকলীগ নেতার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় রোববার রাতে পুলিশ অভিযুক্ত শ্রমিকলীগ নেতা ও তার এক সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- সিলেট নগরীর শামীমাবাদ আবাসিক এলাকার ৪ নম্বর সড়কের ২ নম্বর বাসার দুইতলার ভাড়াটে দেলোয়ার হোসেন ও তার সহযোগী হারুন আহমদ। দেলোয়ার শ্রমিকলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত।

সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডেলিম মিয়া জানান, শনিবার শামীমাবাদ আবাসিক এলাকার ৪ নম্বর সড়কে পাঁচ সন্তানের এক জননী ’ধ’/র্ষি’/ত’ হন। পরে তিনি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি হন। রোববার রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ এলে সাথে সাথে অভিযান চালিয়ে ’ধ’/র্ষ’/ণে’/র’ ঘটনায় অভিযুক্ত দেলোয়ার ও তার সহযোগী হারুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলায় ওই নারী অভিযোগ করেন দেলোয়ার তাকে ’ধ’/র্ষ’/ণ’ করে এবং আরও তিনজন ’ধ’/র্ষ’/ণে’ সহযোগিতা করে।
সূত্র: সময় টিভি


এদিকে, দেশের অনেকে মনে করেন এই সকল ন্যাক্কারজনক ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়ার কারণে দিন দিন এমন ঘটনা বেড়েই চলেছে। আর অনেকে রাজনৈতিক দলের সাথে যুক্ত হয়ে এই সকল ঘটনা ঘটাচ্ছে যাদের বিরুদ্ধে কেউ কোনো কথা বলার সাহস পায় না। তবে এই সকল ঘটনা যখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে তখনি দেশজুড়ে ব্যাপক সামলোচনা দেখা দেয়।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display