ভারতীয় বিনোদন জগতে অসংখ্য অভিনেতা-অভিনেত্রী রয়েছে। এই সকল অভিনেতা-অভিনেত্রীর মধ্যে অন্যতম দুজন হলেন অমিতাভ-জয়া। এই অভিনেতা-অভিনেত্রী সিনেমায় যেমন জনপ্রিয়তার সাথে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন ঠিক সে ভাবে তারা বিয়ে করে দাম্পত্য জীবনেও অনেক ভালো আছেন। এই দম্পতি দেখতে দেখতে তাদের বিয়ের ৪৭ বছর পার করেছে। আর আজ তাদের ৪৭তম বিবাহবার্ষিকী। তবে করোনা ভাইরাসের কারণে এই দম্পতি তেমন অনুষ্ঠান করছে না।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display


১৯৭৩ সালের ৩ জুন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা।
বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বিয়ের কিছু ছবি পোস্ট করে অমিতাভ বচ্চন লিখেছেন, ’আজ ৪৭ বছর পূর্ণ হলো। ৩ জুন ১৯৭৩। সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, যদি ’জঞ্জীর’ সিনেমা সফল হয় আমরা দুজন ও কয়েকজন বন্ধু মিলে প্রথমবারের মতো লন্ডন যাব। আমার বাবা জিজ্ঞেস করেছিলেন, কার সঙ্গে যাব? যখন তাকে বললাম তিনি আদেশ দিলেন, যেতে হলে আগে বিয়ে করতে হবে, না হলে যাওয়া যাবে না। সুতরাং, মেনে নিলাম।’

বাস্তব জীবনের পাশাপাশি রুপালি পর্দাতেও বেশ কয়েকবার জুটি বেঁধেছেন অমিতাভ-জয়া। ’সিলসিলা’, ’অভিমান’, ’চুপকে চুপকে’সহ বেশকিছু সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয় করেছেন তারা। দুই জায়গাতেই তারা সমানভাবে প্রশংসিত হয়েছেন।

অমিতাভ-জয়া দম্পতির দুই সন্তান। ছেলে অভিনেতা অভিষেক বচ্চন, মেয়ে শ্বেতা। তাদের পরিবারে পুত্রবধূ হয়ে এসেছেন বলিউড অভিনেত্রী এবং সাবেক মিস ওয়ার্ল্ড ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। অভিষেক-ঐশ্বরিয়ার দম্পতির একমাত্র মেয়ে আরাধ্য বচ্চন।

এদিকে, করোনা ভাইরাসের কারণে এই দম্পতি তেমন অনুষ্ঠান করতে না পারলেও তাদেরকে অনেকে শুভেচ্ছা যানাচ্ছেন। মূলত সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাদের ভক্তরা শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। আর এই দম্পতি যেন সামনের দিন গুলোতে অনেক ভালো সময় কাটায় সে জন্য অনেকে প্রার্থনা করছেন। এদিকে, করোনা ভাইরাসের কারণে তারাও দীর্ঘদিন ধরে ঘরে বন্দি রয়েছেন। তবে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাদের বিবাহবার্ষিকীর সংবাদ শেয়ার করেছেন অমিতাভ বচ্চন।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display