গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী গত কয়েকদিন আগে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। এই সম্মানিত ব্যক্তির করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর তিনি তাদের প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত করোনা ভাইরাস শনাক্তের কিট দিয়ে করোনার নমুনা পরীক্ষা করেন। আর এরপর তার করোনার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এরপর থেকে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে এরপর এই সম্মানিত ব্যক্তির করোনার নমুনা পরীক্ষা বিএসএমএমইউ। তবে এরপরও তার করোনার রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display



এদিকে, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। বর্তমানে আগের চেয়ে ভালো আছেন। শ্বাসকষ্ট নেই। তবে তার গলায় সামান্য ব্যথা রয়েছে।

মঙ্গলবার (০২ জুন) বিকেলে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী নিজেই তার বর্তমান শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে গণমাধ্যমকে জানান।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আগের চেয়ে ভালো আছি। ধীরে ধীরে উন্নতির দিকে যাচ্ছি। দোয়া করবেন। বর্তমানে শ্বা’সকষ্ট নেই। তবে গলায় কিছুটা ইনফেকশন আছে। সামান্য ব্যথা করছে। এছাড়া অন্যান্য বিষয় ভালো আছে। র’ক্ত নিতে হবে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত কিটের অনুমোদন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের চারশ’ কিটের পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আমরা সরকারকে বলেছি যে, চারশ’ কিটের পরীক্ষা হয়েছে, সেটার ওপর মূল্যায়ন করে একটা অনুমোদন দিন। কিটের পরীক্ষার রিপোর্ট তো আমরা দেখিনি। তবে আমরা শুনেছি এই কিটের রেজাল্ট অনেক পজিটিভ। সূত্র:বাংলানিউজ


উল্লেখ্য, গত ২৫ মে এই সম্মানিত ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। আর বর্তমানে তিনি ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে, তার পরিবারেও করোনা ভাইরাস হানা দিয়েছে। ইতিমধ্যে তার স্ত্রী এবং ছেলে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছে। তারা বর্তমানে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছে। এদিকে, এই সম্মানিত ব্যক্তি সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display