দেশে দিন দিন করোনা ভাইরাসে সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। ইতিমধ্যে দেশে বেশ কয়েকজন সম্মানিত ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। এবার করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ড. ফিরোজ আহমেদ। এই সম্মানিত ব্যক্তি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের র‌্যাপিড টেস্ট কিট উদ্ভাবক দলের অন্যতম বিজ্ঞানী একই সাথে তিনি নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক। এই সম্মানিত ব্যক্তির সাথে তার স্ত্রীও করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। এই সংবাদ গনমাধ্যমকে আজ ড. ফিরোজ আহমেদ নিজেই জানিয়েছেন।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display


ফিরোজ আহমেদ করোনা সংক্রমিত হয়ে আজ নবম দিন এবং তার স্ত্রী সামিনা সুলতানা সপ্তম দিন পার করছেন। তারা উভয়েই ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক তারেক আলম এবং বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক রেদোয়ানুর রহমানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে নিজ বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। প্রথমে তাদের গণস্বাস্থ্যের কিটে নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ আসলে পরবর্তীতে পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষাতেও একই ফল আসে।

এ বিষয়ে ড. ফিরোজ আহমেদ বলেন, ’করোনা উপসর্গ দেখা দিলে ২৬ মে গণস্বাস্থ্যের র‌্যাপিড টেস্টিং কিটে নমুনা পরীক্ষা করে করোনা পজিটিভ রেজাল্ট আসে। পরবর্তীতে পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষাতেও আমি ও আমার স্ত্রী সামিনা সুলতানার একই ফলাফল পাই।’

সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে ড. ফিরোজ বলেন, ’শারীরিক ও মানসিকভাবে আমি ও আমার স্ত্রী শক্ত আছি। জটিল কোনো উপসর্গ নেই এখনো। হালকা জ্বর এবং ডায়রিয়া আছে। তবে কাশি নেই। সবাই আমাদের সুস্থতার জন্য দোয়া করবেন।’

প্রসঙ্গত, ড. ফিরোজ আহমেদ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত র‌্যাপিড টেস্টিং কিটের অন্যতম উদ্ভাবক। ড. বিজন কুমার শীলের নেতৃত্বে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বল্প সময় ও স্বল্প মূল্যে করোনা শনাক্তকরণ কিট উদ্ভাবন কাজের সঙ্গে প্রথম থেকেই যুক্ত ছিলেন ফিরোজ আহমেদ।

এ ছাড়া ড. ফিরোজ আহমেদ নোবিপ্রবির মালেক উকিল হলের প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বাংলাদেশ গ্র্যাজুয়েট মাইক্রোবায়োলজি সোসাইটির সভাপতি হিসেবেও কাজ করছেন তিনি। ড. ফিরোজ আহমেদের স্ত্রী ডা. সামিনা সুলতানা একজন বিশেষজ্ঞ গাইনি চিকিৎসক। সূত্র:আমাদের সময়

উল্লেখ্য, এর আগে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের আরও একজন সম্মানিত ব্যক্তি করোনা আভইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। আর তিনি হচ্ছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এই সম্মানিত ব্যক্তি বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার পরিবারেরও করোনা ভাইরাস হানা দিয়েছে। তার পরিবারে তার স্ত্রী ও ছেলেও করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছে। আর এবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের আর এক সম্মানিত ব্যক্তি ড. ফিরোজ এবার সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display