আমাকে দেশে ফিরতে হবে কারণ আমাকে বাংলাদেশের তরুণদের তৈরি করতে হবে : পিনাকী

ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের লাগামহীন দু/র্নীতি ও লু/টপাটের কারনে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। উন্নয়নের নামে মেগা প্রকল্পগুলো থেকে লুটপাটের সুযোগ করে দিয়েছে দলীয় নেতাকর্মীদের যার ফলে রিজার্ভ সংকট সৃষ্টি হয়েছে। অথচ এর বিরুদ্ধে যখন আন্দোলন করছে বিরোধী দল তাদের ওপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে দ/মন, পী/ড়ন চালানো হচ্ছে। সরকারের এসব কারনে দেশের মানুষের জীবন যাপন ব্যবস্থায় ব্যাপক প্রভাব পড়ছে।বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন পিনাকী ভট্টাচার্য হু/বহু পাঠকদের জন্য নি/চে দেওয়া হলো।

আমাকে দেশে ফিরতে হবে কারণ আমাকে বাংলাদেশের তরুণদের তৈরি করতে হবে। তারা জানেই না তারা কী সম্ভাবনাকে অপচয় করছে। তাদের বলা হয়েছে তারা পারে না। বাংলাদেশের এই অবস্থা নাই যে সে তার ট্যালেন্টদেরকে ম্যানেজ করতে পারে। বাংলাদেশের ক্যাপাসিটিও নাই তার ট্যালেন্টদের সে এবজর্ভ করতে পারে তার ওয়ার্ক ফোর্সে।

বাংলাদেশের তরুণদের আসতে হবে পশ্চিমে। পড়ালেখা করতে হবে, কাজ করতে হবে। ভাগ্য গড়ার জন্য না, শেখার জন্য। যেন শিখে ফিরে যায়, কীভাবে ইন্সটিটিউট গড়তে হয়, কীভাবে সিস্টেম দাড় করাতে হয়। কীভাবে চিন্তা করতে হয়, দুনিয়া কীভাবে কাজটা চায়। দুনিয়া কী ভাবে। আর নিজেকে দুনিয়ার সাথে পাশাপাশি দাড় করিয়ে যেন মাপতে পারে। যে কোন প্রতিষ্ঠানে কাজ করলে হবে না। কাজ করতে হবে ফরচুন ফাইভ হান্ড্রেড কোম্পানীতে।

দশ হাজার তরুণকে যদি কাজ করতে পাঠানো যায় পশ্চিমে ফরচুন ফাইভ হান্ড্রেড কোম্পানিগুলোতে আর তার মধ্যে যদি পাচ হাজার তরুণ ফিরে আসে দেশে, তাহলেই নিশ্চিন্ত। ওরাই বাকী কাজটা করে ফেলবে।

আর এই কাজটা করতেই আমাকে দেশে ফিরতে হবে। পশ্চিমে ভাগ্য গড়া যায়। এতোদিন সবাই তাই করেছে। কিন্তু তাতে দেশের কোন উপকার নেই। পশ্চিমে জীবন কাটাবো আর দেশের সাথে একটা লুজ কানেকশন থাকবে আর বছর বছর ছুটি কাটিয়ে আসবো দেশে গিয়ে, এই জীবন ব্যক্তিগতভাবে সফল হতে পারে। কিন্তু এই সাফল্যের কোন মুল্য নাই দেশের কাছে।

এই চাকাটাকে উল্টোদিকে ঘুরিয়ে দিতে হবে। পশ্চিমের শিক্ষা আর দক্ষতা দিয়ে দেশের ভাগ্য বদলাতে হবে। সেই কাজটা তারাই পারবে, যারা সফল ক্যারিয়ার করেছে, জীবন গড়েছে পশ্চিমে আর সেটা ত্যাগ করে ফিরে এসেছে দেশে।

প্রসঙ্গত, সরকার দু/র্নীতি ও লু/টপাটের ধারাবাহিকতায় ব্যাপক প্রভাব পড়েছে অর্থনীতি যার ফল ভোগ করছে দেশের মানুষ বিশেষ করে যুব সমাজ মন্তব্য করেন পিনাকী ভট্টাচার্য। তিনি আ/রও বলেন, যুব সমাজ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার অগ্রনী ভূমিকা পালন করে তারাই যদি শেষ হয়ে যায় তাহলে কিভাবে দেশ চলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *