এবার শীর্ষ দু্ই নেতাকে নিয়ে বড় ধরনের দুঃসংবাদ পেল বিএনপি

সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুতে আন্দোলন সংগ্রাম করছে বিএনপি। যার ধারাবাহিকতায় সমাবেশ করছে বিভাগীয় শহরগুলোতে দলটি। বিএনপির দাবি সরকার দেশের ভোট ব্যবস্থা ধ্বংস করে জনগণের ভোটাধিকার হরন করেছে। জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য লড়াই করছে বিএনপি। ঢাকায় সমাবেশকে প্রতিহত করাকে কেন্দ্র করে আইশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে হয় বিএনপির নেতাকর্মীদের। যার পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে পুলিশ। এবার বিএনপি মহাসচিবসহ দলের নেতাকর্মীদের জামিন প্রসঙ্গে যা জানাগেল।

না/শকতা মামলায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও মির্জা আব্বাসসহ ২২৪ বিএনপি নেতাকর্মীর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (১২ ডিসেম্বর) ঢাকা মহানগর হাকিম শফিউদ্দিন শুনানি শেষে তাদের জামিন নামঞ্জুর করেন। এর আগে রোববার তাদের জামিন আবেদন করা হয়।

মির্জা ফখরুলের পক্ষে জামিন আবেদন করেন আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ। তাকে সহযোগিতা করেন জাকির হোসেন জুয়েল, শেখ শাকিল আহমেদ রিপন। এ ছাড়া মির্জা আব্বাসের পক্ষে জামিনের আবেদন করেন মহিউদ্দিন চৌধুরী।

জামিন নামঞ্জুর করা উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক মোঃ আব্দুস ছালাম, বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, সাবেক সংসদ সদস্য মো. ফজলুল হক মিলন, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন ও সাবেক সংসদ সদস্য সেলিম রেজা হাবিব।

গত ৮ ডিসেম্বর রাতে রাজধানীর বাসা থেকে মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাসকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরদিন ৯ ডিসেম্বর তিনি আদালতে হাজির হয়ে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

গত ৭ ডিসেম্বর বিকেলে নয়াপল্টনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সং/ঘর্ষে একজন নি/হত হন। এছাড়া আহত হয়েছেন বহু মানুষ। সং/ঘর্ষের ঘটনায় ৪৭৩ জনের নাম উল্লেখসহ দেড় হাজার থেকে দুই হাজার বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। রাজধানীর পল্টন মডেল থানায় বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, আদালত শুনানি শেষে তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছে বলে জানা যায়। তবে এ বিষয়ের দলের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে এখনো কিছু জানানো হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *