এবার বিএনপির সমাবেশ নিয়ে কঠোর বার্তা দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দীর্ঘ দিন ধরে ক্ষমতার বাইরে থেকে সাংগঠনিক ভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছে বিএনপি এমটিই ধারনা ছিলো বিভিন্ন মহলের। তবে সম্প্রতি বিএনপির ধারাবাকিব ভাবে বিভাগীয় সভা-সমাবেশসহ নানা কর্মসূচি দেখে ক্ষমতাসীন সরকারকে চিন্তায় কারন হয়েছে দাঁড়িয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে বিএনপি আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে। সমাবেশের নামে কোন ধরনের নাসকতামূলক ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে। সমাবেশের নামে ১০ ডিসেম্বরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হলে পুলিশ ব্যবস্থা নেবে মন্তব্য করে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, পুলিশের নিষেধাজ্ঞা না মেনে বিএনপি ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে তাদের কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করলে পুলিশ ব্যবস্থা নেবে।

শনিবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ থানার নতুন ভবনের ফলক উন্মোচন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগসহ সব রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন জড়ো হয়েছে। বিএনপি বলেছে, তাদের জন্য অনেক লোক সমাগম হবে, তাই তাদের সুবিধার্থে পুলিশ কমিশনার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান তাদের সমাবেশের জন্য বরাদ্দ করেছিলেন। এ কারণে ছাত্রলীগের সম্মেলনের তারিখও পরিবর্তন করা হয়েছে।

তবে বিএনপি বলেছে, তারা তা করবে না, দলীয় কার্যালয়ে যাবে বলে জানিয়েছে। পুলিশ কমিশনারের নির্দেশ না মেনে নয়া পল্টনে তাদের কার্যালয়ের সামনে জড়ো হলে পুলিশ কমিশনার এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন। মন্ত্রী আরও বলেন, পুলিশ কমিশনার ঢাকা শহরের কার্যক্রম ও আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেবেন।

বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে চাল-ডাল মজুদ করার বিষয়টিকে আওয়ামী লীগ কীভাবে দেখে- এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে সামনে চাল-ডাল নিয়ে অবস্থান করে সরকারের পতনের ডাক দেবে। এখানে আমাদের বক্তব্য পরিষ্কার, আওয়ামী লীগ কখনো ষ/ড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসেনি। জনগণের ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছেন। অন্যদিকে ব/ন্দুকের নল ঠেকিয়ে ক্ষমতায় এসেছে বিএনপি। তারা ষ/ড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসার জন্য নানা কৌশল করছে। আওয়ামী লীগ চাল-ডাল মজুদ করে তারা কি করে সেটি দেখছে।

আবু জাহির এমপি, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. মাহবুব আলী, অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান এমপি, হবিগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা.মুশফিক হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।

এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান থানায় নবনির্মিত চারতলা ভবনের উদ্বোধন করেন। পরে পুলিশ প্রশাসন আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন তিনি। আট কোটি টাকা ব্যয়ে এটি নির্মাণ করেছে সরকারের গণপূর্ত বিভাগ।

প্রসঙ্গত, বিএপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য নতুন ষ/ড়যন্ত্র করছে মন্তব্য করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, বিএনপি কোনো ধরনের নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *