এমন সংকীর্ণ বিষয় নিয়ে মাথা ঘামিও না প্লিজ : শাহরুখ খান

বলিউড বাদশা খ্যা/ত অভিনেতা শাহরুখ খান। অভিনয় দক্ষতায় দীর্ঘ দিন ধরেই বলিউড সিনেমায় রাজত্ব করে যাচ্ছেন। ভক্ত ও দর্শকদের একের পর এক জনপ্রিয় সিনেমায় ‍উপহার দিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু হঠাৎ দীর্ঘ বিরতির পর আবারও পাঠান সিনেমার মাধ্যমে পর্দায় ফিরেছেন। তবে পাঠানের ‘বেশরম রং’ গান নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছে। এবার পাঠান সিনেমা প্রসঙ্গে ভক্তদের প্রশ্নের জবাবে যা জানালেন অভিনেতা শাহরুখ খান।

বলিউডের কিং খান শাহরুখ খানের নতুন ছবি ‘পাঠান’ নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই আলোচনা হচ্ছে। মুক্তির দিন যতই ঘনিয়ে আসছে সিনেমা নিয়ে আলোচনা ততই বাড়ছে।

বুধবার টুইটারে একটি প্রশ্নোত্তর পর্ব করেন শাহরুখ।

সেখানে একজন ম/ন্তব্য করেছেন, ‘পাঠান’ সিনেমাটি ফ্লপ হবে। তাই তিনি শাহরুখ খানকে অবসর নেওয়ার পরামর্শ দেন। অভিনেতাও বাদশাহী মেজাজে তাকে উত্তর দেন। আর তাতেই নতুন করে তোলপাড় শুরু হয় নেটদুনিয়ায়।

শাহরুখের কামব্যাক মুভি ‘পাঠান’ ২৫ জানুয়ারি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে। তার আগে, ১০ জানুয়ারি অর্থাৎ আগামী মঙ্গলবার মুক্তি পাবে ছবির ট্রেলার। এমন পরিস্থিতিতে টুইটারে প্রশ্নোত্তর পর্ব করলেন সুপারস্টার। সেখানে একজন লিখেছেন- ‘ পাঠান তো ফ্ল/প, অবসর নেন।’ জবাবে কিং খান লেখেন- ‘বাচ্চারা বড়দের সঙ্গে এভাবে কথা বলে না!’

একজন শাহরুখের খান উপাধি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি লিখেছেন- ‘যদি আপনার পরিবার কাশ্মীর হয়ে থাকে, তাহলে আপনি কেন আপনার নামের পাশে খান উপাধি ব্যবহার করেন?’, যার জবাবে অভিনেতা বলেছিলেন- এই গোটা দু/নিয়াটাই আমার পরিবার… প/রিবারের নামে সু/নাম হয় না… কা/জের জোরে সুনাম হ/য়… এমন সংকীর্ণ বিষয় নিয়ে মাথা ঘামিও না প্লিজ। .’

শাহরুখের প্রশ্নোত্তর পর্বে জড়িয়ে পড়েন আলিয়া ভাটও। একজন ভক্ত জিজ্ঞাসা করলেন কেন শাহরুখকে এসআর বলে ডাকেন ভাটকন্যা? শাহরুখ মজা করে উত্তর দিয়েছিলেন যে আলিয়া হয়তো তাকে ডেকেছেন কারণ তিনি ‘মিষ্টি’ এবং ‘রোমান্টিক’।

শাহরুখের কৌতুকের জবাবে আলিয়া বলেন, ২৫ জানুয়ারি থেকে তিনি শাহরুখকে ‘পাঠান’ বলে ডাকবেন। উত্তরে কিং খান লেখেন- ‘ঠিক আছে, তবে তাই হোক! আর আমি এখন থেকে তোমাকে আম্মা ভাট কাপুর বলে ডাকব।’

প্রসঙ্গত, পাঠান সিনেমা প্রসঙ্গে বিভিন্ন প্রশ্নের মুখোমুখি হন শাহরুখ খান এবং সেগুলোর জবাব দেন। তবে ভক্তদের প্রশ্নে কোনো ধরনের বিরক্তি প্রকাশ করেনি তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *