তুমি যত বড় এবং শক্তিশালী হও না কেন কখনই বাবার ভালোবাসাকে ছাড়িয়ে যেতে পারবে না : রাজ

বর্তমান সময়ের আলোচিত তারকা জুটি পরীমনি ও শরিফুল রাজ। যদিও তাদের সংসার জীবনের শুরুটা ভালো হলেও বছর যেতে না যেতে ভাঙনের সুর। তবে পরীমনির সঙ্গে বিচ্ছেদের বিষয় নিয়ে এখনো তেমন কিছু বলেননি রাজ। কিছু দিন আগেও অভিনেত্রী পরীমনি রাজের সঙ্গে মিমের সম্পর্ক নিয়ে কড়া মন্তব্য করেন পরে এক পর্যায়ে বিষয়টি থেমে যায়। তবে এবার পরীমনি বিচ্ছেদের পথেই হাঁটছেন বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। এবার সন্তানকে নিয়ে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়ে যা জানালেন অভিনেতা শরিফুল রাজ।

গত বছরের শুরু থেকেই পরীমনি ও শরিফুল রাজ সংসার নিয়ে আলোচনায় ছিলেন। সারা বছর ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের প্রেমের খবর শেয়ার করেছেন পরী। কখনো ছবি শেয়ার করে, কখনো স্ট্যাটাসে। কিন্তু বছরের শেষটা ভালো যায়নি তাদের। নতুন বছরের শুরুটা ভা/লো হলো না তাদের।

দুই দিন আগে রাজের সঙ্গে বিবাহিত জীবন শেষ করার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন পরীমনি। রোববার দুপুরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানান এ অভিনেত্রী।

তবে বিচ্ছেদের বিষয়ে শুরু থেকেই চুপ ছিলেন রাজ। পরীর কোনো প্রতিক্রিয়া না জানালেও, নতুন বছরের প্রথম দিনে তাদের পাঁচ মাস বয়সী ছেলে রাজ্যের ছবি পোস্ট করে আবেগঘন কিছু লিখেছেন রাজ। ছেলের হাসিমুখে ছবি দিয়ে নতুন বছরের শুভেচ্ছাও জানান তিনি।

‘পরাণ’ খ্যাত নায়ক লিখেছেন, আমার প্রিয় পুত্র, তোমার একটি দু/র্দান্ত বছর এবং দুর্দান্ত কাটুক সামনের বছরগুলো। তোমার সুস্বাস্থ্য কা/মনা করছি। সামনের বছরগুলো আনন্দে ভরে উঠুক। আমার হৃদয় সবসময় তোমার জন্য ভা/লবাসা পূর্ণ থাকবে।

রাজ্যকে উদ্দেশ্য করে শরিফুল রাজ আরও লেখেন, তুমি যত বড় এবং শক্তিশালী হও না কেন কখনই বাবার ভালোবাসাকে ছাড়িয়ে যেতে পারবে না।

২০২১ সালে ‘গুনিন’ ছবির শুটিংয়ের সময় পরীমনি ও শরিফুল রাজের প্রেমে জড়ান । ওই বছরের ১৭ অক্টোবর গোপনে বিয়ে করেন তারা।

পরীমনি এর আগে বেশ কয়েকবার বিয়ে করলেও এটাই রাজের প্রথম বিয়ে। জানুয়ারী মাসে ১০১ টাকা দেনমোহরে দিয়ে তাদের পারিবারিক বিবাহ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছিল। ১০ আগস্ট, রাজ-পরীর ঘরে পুত্র সন্তান রাজ্য আসে। তার বয়স এখন পাঁচ মাস।

এদিকে রাজের সঙ্গে বিচ্ছেদের বিষয়টি দুদিন আগে প্রকাশ্যে আনেন পরী। অনেক চেষ্টা করেও দাম্পত্য সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে পারেননি বলে রোববার বিকেলে জানান।

রাজকে অভিযুক্ত করে পরীমনি বলেন, আমি জোর দিয়ে বলতে পারি, আমাদের সম্পর্ক এখন পর্যন্ত টিকে আছে শুধুমাত্র আমার প্রচেষ্টায়। কিন্তু বারবার হাত তোলার পর্যায়ে পৌঁছে গেলে আর সম্পর্ক থাকে না। শ্রেফ বিষ্ঠা হয়ে যায়।

সন্তানের কথা উল্লেখ করে পরী বলেন, রাজ্যের দিকে তাকিয়ে বারবার সব ভুলে যাই। আমি সবকিছু ঠিক করার জন্য পড়ে থাকি। কিন্তু তাতে কি সত্যিই আমার সন্তানের জন্য ভালো হবে? না। সে (রাজ্য) অসুস্থ একটা সম্পর্ককে এত কাছ থেকে দেখে বড় হতে পারে না। তাই আমি, রাজ্য এবং রাজের মঙ্গলের জন্য, আলাদা হয়েছি।

প্রসঙ্গত, সন্তানের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করেন এবং তার ভালো থাকা নিয়ে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন অভিনেতা রাজ। তিনি তার কথায় স্পষ্ট করেন সন্তানের ভবিষ্যত প্রসঙ্গ নিয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *