বিষ খেয়ে আত্মহননের চেষ্টা, অবশেষে না ফেরার দেশে অভিনেতা

দক্ষিণী সিনেমার আলোচিত অভিনেতা সুধীর শর্মা। কর্ম দক্ষতায় নিজের আধিপাত্য বিস্তার করে নিয়েছিলেন মিডিয়া জগতে। তাছাড়া অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি নির্মাতা হিসেবে কাজও করেছেন। কিন্তু হঠাৎ করে আত্মহননের জন্য বিষ পান করেন বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। আর বিষয়টি বুঝতে পেরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তেলেগু ছবি ‘নিকু নাকু ড্যাশ ড্যাশ’, ‘সেকেন্ড হ্যান্ড’ অভিনেতা সুধীর শর্মা মা/রা গেছেন। তার বয়স ৩৩ বছর। প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা, সুধীর আ/ত্মহত্যা করেছে। ব্যক্তিগত কারণে আ/ত্মহত্যার সিদ্ধান্ত বলে ধারণা করছে পুলিশ।

তবে কী কারণে তিনি আ/ত্মহত্যা করেছেন পুলিশ তা জানতে পারেনি। এখনও পর্যন্ত সুধীরের কোনও সুইসাইড নোট উদ্ধার করা যায়নি। কী কারণে অভিনেতার অকালমৃত্যু হল সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁ/জছে কর্তব্যরত থাকা পুলিশ। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃ/ত্যুর কারণ জানা যাবে বলে আশা করছেন তারা।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, সোমবার ভারতের বিশাখাপত্তনমে তার বাড়ি থেকে অভিনেতার লা/শ উদ্ধার করা হয়। এদিকে সুধীরের হঠাৎ চলে যাওয়াকে কেউ কেউ রহস্যজনক মৃ/ত্যু বলে দাবি করছেন। পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো কোনো মন্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশ করা হয়নি।

পারিবারিক সূত্রে খবর, ‘দ্য ওয়াল’ সুধীর বিষ খেয়ে আ/ত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরিবারের স/দস্যদের নজরে আসায় ১৮ জানুয়ারি তাকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরিস্থিতির অবনতি হতে থাকে। চিকিৎসকদের অনেক চেষ্টা করেও শেষ রক্ষা হয়নি।

থিয়েটারের মাধ্যমে অভিনয়ে হাতেখড়ি হয় সুধীরের। ২০১৩ সালে ‘স্বামী রা রা’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। প্রথম ছবিতেই দারুণ সাফল্য পান তিনি। এরপর মিডিয়াতে সফলতার সাথে কাজ করেন। ২০১৭ সালে, তিনি চলচ্চিত্র পরিচালনা শুরু করেন। তাঁর পরিচালিত কেশব ছবিতেও সুধীর মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, তার আ/ত্মহননের বিষয়ে নিয়ে এখনো কুল কিনেরা করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে খুব তাড়াতাড়ি আত্মহনরে কারণ জানার প্রত্যাশ ব্যক্ত করা হয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *