যেই তত্ত্বাবধায়ক চলে গেছে সেটা আসার আর সুযোগ নেই : সাবেক আইজিপি শহীদুল হক

আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মাঠে সরব রাজনৈতিক দলগুলো। নিরপেক্ষ সরকার দাবিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে মাঠে আন্দোলন সংগ্রাম করেছে বিরোধী দল বিএনপি। নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া নির্বাচনে অংশ নিবে না বিএনপি এমনটায় জানানো হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে। তবে ক্ষমতাসীন সরকার সংবিধানের বাহিরে নির্বাচনের যেতে রাজি নন। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কোনো সুযোগ নেই মন্তব্য করে যা বলেন সাবেক আইজিপি শহীদুল হক।

বিএনপিকে উদ্দেশ করে সাবেক আইজিপি শহীদুল হক বলেন, যে তত্ত্বাবধায়ক গেছে সেটা আসার কোনো সুযোগ নেই। এখন আপনারা ভাবুন কিভাবে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করা যায়, কিভাবে ফেয়ার নি/র্বাচন করা যায়।

রোববার (২০ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম হলে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ‘স্বাধীন নির্বাচন কমিশন বনাম তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রাসঙ্গিক ভাবনা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শহিদুল হক বলেন, আপনারা নির্বাচনে আসবেন না, এটা ভালো কথা নয়। সরকারের সঙ্গে বসতে হবে। আপনারা একটি রু/প রেখা দেন নির্বাচনকালীন সরকারের আমরা এটনটা চাই।

তিনি বলেন, আপনারা নির্বাচনে আসবেন না এটা ঠিক নয়। ২০১৪ সালের নির্বাচনে তিনি আসেননি। নির্বাচন বসে নেই, নির্বাচন হয়েছে। সারা বিশ্বের সবাই সেই সরকারকে স্বীকৃতি দিয়েছে। ২০১৪ সালের তুলনায় আওয়ামী লীগ এখন ২০২২ সালে অনেক শক্তিশালী।

সাবেক এই আইজিপি বলেন, যারা তত্ত্বাবধায়ক সরকার চান তাদের উচিত আদালতে গিয়ে দাবি তোলা। আদালতের অনুমোদন ছাড়া এটা করা যাবে কি? এটা আদালত অবমাননার শামিল। আপনি রাজনীতি করবেন, দেশ চালাবেন, আদালতের সম্মান থাকবে না, এটা হতে পারে না।

তিনি বলেন, যে তত্ত্বাবধায়ক চলে গেছে সেটা আসার কোনো সুযোগ নেই। এখন আপনারা ভাবুন কিভাবে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করা যায়, কিভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন করা যায়।

প্রসঙ্গত, তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর সম্ভব নয় আলোচনার মাধ্যমে আগামী নির্বাচন কিভাবে হবে সেটি ঠিক করতে হবে মন্তব্য করেন সাবেক আইজিপি শহীদুল হক। তিনি বলেন, কারর জন্য নির্বাচন বসে থাকবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *