হাসিনা বা তার মন্ত্রী একেক ডায়ালাইসিসের রোগীর একেক সেশনের ফি এর মধ্যে প্রায় ১ হাজার টাকার একটা কমিশন পায় : পিনাকী

বিনা ভোটে ক্ষমতা দখল করে দেশে একনায়তন্ত্রের রাজত্ব কায়েম করেছে আওয়ামীলীগ সরকার। আর ক্ষমতার ধারাবাকিতায় দু/র্নীতি ও লু/টপাটের মাধ্যমে দেশের অথনৈতিক ব্যবস্থা হু/মকির মুখে ফেলেছে তারা। উন্নয়নের নামে লু/টপাট করছে মেগা প্রকল্পগুলো থেকে যার কারণে দেশের রিজার্ভ সংকট তৈরী হয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে সমগ্র ব্যাংকিং ব্যবস্থা। যার প্রত্যক্ষ দায় ভোগ করছে দেশের সাধারন মানুষ। এসব তথ্য আড়াল করতে নতুন নতুন ঘটনার সৃষ্টি করছে সরকার। বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন পিনাকী ভট্টাচার্য পা/ঠকদের জন্য হুবহু নি/চে দেওয়া হলো।

হাসিনা বা তার মন্ত্রী একেক ডায়ালাইসিসের রোগীর একেক সেশনের ফি এর মধ্যে প্রায় ১ হাজার টাকার একটা কমিশন পায়। কথাটা শুনে খুব অবাক লাগলো?
দু/র্নীতিটা এমনভাবে করা হয়েছে যে নাম্বার ওয়ানের অনুমোদন ছাড়া এটা অসম্ভব। হাসিনার ব্যক্তিগত লাভ ক্ষতির বিষয় আছে জন্যই পুলিশ রোগী আর তার স্বজনদের উপরে হামলে পড়েছে।

কমিশন খাওয়ারও একটা ক্লাস আছে। হাসিনা আর তার মন্ত্রীরা একেবারেই ক্লাসলেস। ডালালাইসিসের ফি থেকেও কমিশন খাইতে হবে তাদেরকে? যাই হোক দুর্নীতির অকাট্য প্রমাণ আছে। কপাল কুচকাইয়েন না।

প্রসঙ্গত, সরকার দেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা হু/মকির মুখে ফিলেছে কিন্তু তাদের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে দু/র্নীতি, লু/টপাট তারা নাকি কোথাও দেখতে পাচ্ছেন না মন্তব্য করেন পিনাকী ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, দেশের মানুষকে রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে নিজেদের পকেট ভরছে কিন্তু ক্ষমতায় থাকার জন্য সেগুলো আড়াল করতে ভয় দেখাচ্ছে নানা ভাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *